Computer basic bangla!! Windows 7/10 পিসির কিছু অজানা তথ্য ও টিপস!! Part 2 শেষ র্পাট


আছালামুলাইকুম, বন্ধুরা আপনারা সবাই কেমন আছেন। আশা করি সবাই ভালোই আছেন, আজ আপনাদের মাঝে Windows 7/10  পিসির কিছু অজানা তথ্য ও টিপস Part 2 নিয়ে হাজির হয়েছি। তো শুরু করা যাক,,,


Computer basic bangla tools

১. কম্পিউটারের কিছু প্রয়োজনীয় শর্টকাট (shortcut) key:


আমার কম্পিউটারে কাজ করার সময় কিছু শর্টকাট (shortcut key) ব্যবহার করে আমাদের কাজ গুলি অনেক সহজে করে নিতে পারি। নিচে দেয়া কম্পিউটারের shortcut key গুলি জানা থাকলে, আপনি অফিসে কাজের সময় ব্যবহার করতে পারবেন, বা কম্পিউটার রিলেটেড চাকরির ইন্টারভিউ দেয়ার সময় দেখিয়ে নিজের অভিজ্ঞতা জানিয়ে দিতে পারবেন।
  • Important computer shortcut keys in bangla
  1. Alt+F ব্যবহার করে, যেই প্রোগ্রাম ব্যবহার করছেন, তার file menu option পেয়ে যাবেন।
  2. ALT+E দ্বারা যেই প্রোগ্রাম ব্যবহার করছেন তার edit option পেয়েযাবেন।
  3. F5 কিবোর্ডে প্রেস কোরে কম্পিউটার রিফ্রেশ (refresh) করতে পারবেন।
  4. যেকনো ফাইল বা ফোল্ডার সিলেক্ট কোরে F2 press করলে, ডাইরেক্ট ফাইল রিনেম (file rename) অপসন এসেযাবে।
  5. Alt+Tab প্রেস কোরে খোলা (open) প্রোগ্রাম গুলির মধ্যে একটা বেচেনিয়ার অপসন পাবেন
  6. Ctrl+A প্রেস কোরে যেকোনো ফাইলের সব টেক্সট (text) একেবারেই পুরোটা একসাথে সিলেক্ট করতে পারবেন।
  7. CTRL+S প্রেস কোরে যেকোনো ফাইল বা document শর্টকাটে সেভ (save) করতে পারবেন।
  8. Ctrl+C প্রেস কোরে যেকোনো সিলেক্ট করা অংশ কপি (copy) করতে পারবেন।
  9. Ctrl+V যেকোনো কপি করা অংশ সহজে পেস্ট করার জন্য।
  10. Ctrl+P যেকোনো document বা file প্রিন্ট করার শর্টকাট।
  11. Alt+F প্রেস কোরে যেকোনো ওপেন থাকা প্রোগ্রাম সহজে close করুন।
  12. Ctrl+Z ব্যবহার কোরে যেকোনো স্টেপ বা ভুল step আবার ভুল করার আগের অবস্থায় নিয়ে যেতে পারবেন।
তাহলে, আশা করি বন্ধুরা, উইন্ডোস কম্পিউটারের এই প্রয়োজনীয় শর্টকাট কি গুলি আপনাদের অনেক কাজে আসবে।


২. কম্পিউটারে যেকোনো ওয়েবসাইট ব্লক করুন (block website):


  • আপনি যদি, নিজের কম্পিউটার থেকে যেকোনো ওয়েবসাইট ব্লক করে রাখতে চান, তাহলে সেটা অবশই সম্ভব।
  • সবার আগে, আপনার “Win + R” বাটন প্রেস করতে হবে।
  • এরপর আপনারা RUN dialog box কম্পিউটার স্ক্রিনে দেখতে পাবেন কম্পিউটারে ওয়েবসাইট ব্লক
  • এখন, Run বক্সে কীবোর্ড (keyboard) ব্যবহার কোরে এই শব্দগুলি লিখুন %windir%\system32\drivers\etc (ওপরে ছবিতে দেখুন).
  • লিখা হয়ে গেলে শেষে “Ok” button এ ক্লিক করুন এখন আপনার সামনে, কিছু ফাইল দেখা দিবে, edit host file in run
  • যা আপনারা ওপরে দেখছেন, আপনাদের প্রথমে থাকা “Hosts” ফাইলটি কপি করে desktop বা অন্য ফোল্ডারে পেস্ট (past) করতে হবে।
  • এখন, পেস্ট করা hosts file এ right click করুন এবং Open with অপশনে ক্লিক করুন।
  • Open with এ ক্লিক করার পর আপনারা notepad অপসন দেখবেন যেখানে আপনাদের ক্লিক করতে হবে Hosts ফাইলটি নোটপ্যাড এ ওপেন করার পর আপনারা কিছু লেখা তাতে দেখবেন।
  • ফাইলটির নিচে, “Localhost name resolution” লেখার নিচের দিকে আপনারা কিছু আইপি IP address দেখবেন।
  • এখন, আপনাদের এই আইপি (IP) address কপি করে নিয়ে একেবারে শেষে পেস্ট (paste) করতে হবে। Block website in computer
  • কপি করা আইপি এড্রেস ফাইলের একদম শেষে পেস্ট কোরে তার পাশে, যেই ওয়েবসাইট ব্লক করতে চান, তার URL address লিখে দিতে হবে।
  • Block করা ওয়েবসাইটের www. এবং www ছাড়া দুটোই version আপনাদের লিখতে হবে। তাছাড়া, আলাদা আলাদা ওয়েবসাইটের জন্য আপনার আইপি এড্ড্রেসের শেষে ১, ২,৩,৪ এভাবে মিলিয়ে লিখতে হবে।
  • এখন, hosts file টি save করুন এবং যেখান থেকে কপি করেছিলেন, সেখানেই আবার পেস্ট করুন।
  • Block করা ওয়েবসাইট যখন আপনি আপনার কম্পিউটারের ব্রাউজারে খোলার চেষ্টা করবেন, তখন সেই ওয়েবসাইট আর আপনার কম্পিউটারে ওপেন হবেনা।
এভাবেই, আপনি নিজের কম্পিউটারে যেকোনো ওয়েবসাইট ব্লক করে দিতে পারবেন।

৩. Personal file এবং folder সুরক্ষিত রাখুন:


আপনারা কি জানেন, আপনার কম্পিউটার থেকে যেকোনো জরুরি ফাইল বা ফোল্ডার জেকেও পেনড্রাইভে (pendrive) বা অন্য external storage device ব্যবহার কোরে নিয়ে সেগুলির অপব্যবহার (misuse) করতে পারে ? তাহোলে, আপনার কম্পিউটার থেকে যাতে কেও কোনো file বা folder নিয়ে সেগুলি দেখতে বা ওপেন (open) করতে বা খুলতে না পারে, তার জন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন “encrypt content function” এর।
যখন, আপনি এই encrypt contents অপশনের ব্যবহার করে যেকোনো file বা folder, encrypt করবেন, তখন সেই encrypt করা file বা folder কেবল আপনার কম্পিউটারেই ওপেন (open) হবে বা খুলবে আপনার কম্পিউটার ছাড়া সেই ফাইল বা ফোল্ডার অন্য কোনো কম্পিউটারে বা ল্যাপটপে চলবেনা। কারণ, এক ধরণের security সেই file বা ফোল্ডারে encrypt content অপশনের দ্বারা এপলাই (apply) কোরে দেয়া হয়।

কিভাবে করবেন encrypt content অপশনের ব্যবহার ?

  • সবার আগে, আপনি যেই file বা folder এ encrypt content অপসন enable করতে চান, সেই ফাইল বা ফোল্ডারে right click করুন এবং তারপর নিচে “properties” অপশনে ক্লিক করুন। Go to folder properties
  • এখন properties এ ক্লিক করার পর আপনারা “advanced” বলে একটি অপসন দেখবেন। সোজা, advanced অপশনে ক্লিক করুন।
  • Advanced এ ক্লিক করার পর আপনারা কিছু অপশনস দেখবেন। enable encryption in folder দেখা option গুলির মধ্যে, সবচেয়ে শেষে নিচের দিকে – “Encrypt contents to secure data” বলে একটি অপসন দেখবেন, যেটাতে select করে বা click করে নিচে “OK” এবং তারপর “Apply” button এ ক্লিক করতে হবে। settings apply করুন
এই স্টেপ গুলি ভালো ভাবে করলেই, আপনার বেঁচে নেয়া জরুরি ফাইল বা ফোল্ডার secure হয়ে যাবে এবং কেও সেগুলি কপি করে নিলেও, তাদের কম্পিউটারে ওপেন করতে পারবেনা।


৪. কম্পিউটারে যেকোনো ফোল্ডার হাইড (folder hide) করুন:


এখন, অনেক সময় আপনার কম্পিউটারে এমন কোনো ফাইল বা ফোল্ডার থাকতেই পারে, যেগুলি আপনারা লুকিয়ে রাখতে চান। বা, সেই file বা folder গুলি আপনারা অন্য কাওকে দেখাতে চাননা। এই ক্ষেত্রে, আপনারা উইন্ডোস এর একটি বিশেষ ফাঙ্কশন (function) “Hide folder” অপশনের ব্যবহার করতে পারবেন।
  • উইন্ডোস কম্পিউটারে যেকোনো ফোল্ডার হাইড করার জন্য বা লুকিয়ে রাখার জন্য, আপনার সেই ফোল্ডারে right click কোরে তারপর properties অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  • Hide a folder in computer এখন, Properties অপশনে ক্লিক করার পর আপনারা “General” ট্যাবে “Hidden” বলে একটি অপসন দেখবেন, যেটাতে ক্লিক কোরে সিলেক্ট করে নিতে হবে।
  • Click on hidden option শেষে, “Apply” button এ ক্লিক করুন।
  • এখন আপনার বেঁচে নেয়া folder hide হয়ে যাবে।

৫. কম্পিউটারের হিডেন ফোল্ডার কিভাবে দেখবেন (show hidden folder):


এখন আপনার কম্পিউটারে যদি কোনো ফাইল বা ফোল্ডার হাইড হয়ে থাকে, তাহলে সেটাকে আবার show করার জন্য আপনার কিছু steps follow করতে হবে। হিডেন ফোল্ডার (hidden folder) show করার জন্য আপনার প্রথমেই সেই drive open করতে হবে যেই ড্রাইভে ফাইল বা ফোল্ডার শো করতে চান।
  • Click on view option এখন, যেভাবে আপনি ওপরের ছবিতে দেখছেন আপনি “View” অপসন একটি ওপরের বামদিকে দেখতে পাবেন। সোজা, সেই view অপশনে ক্লিক করুন।
  • এখন, View অপশনে ক্লিক করার পর, আপনারা ডানদিকে আরো কিছু options দেখবেন দেগুলির মধ্যে “Options” এবং তারপর “change folder and file option” এ ক্লিক করুন।
  • Go to folder options এখন, আপনারা একটি dialog box দেখবেন, যেখানে file এবং folder এর সাথে জড়িত অনেক options আপনারা দেখবেন। সোজা, বক্সের ওপরে “view” ট্যাবে ক্লিক করুন এবং নিচে থাকা “show hidden files,folders and drives” অপশনে ক্লিক করুন এবং নিচে “Apply” তে ক্লিক করুন।
  • show hidden files in computer এখন, অনেক সহজে আপনার কম্পিউটারের বেচেনিয়া ড্রাইভে থাকা সব hidden files এবং folder show হয়ে যাবে।


ধন্যবাদ সবাইকে, ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, নিরাপদে থাকুন।

Post a Comment

3 Comments