জেনে রাখুন কিভাবে আমাদের দেশের সিম অন্য দেশে ব্যাবহার করবেন। প্রবাসী বাংলাদেশি দের জন্য থুবই গুরুত্বপূর্ণ পোস্টটি

আসসাামুআলাইকুম বন্ধুরা। কেমন আছেন সবাই। আশাকরি মহান আল্লাহর অশেষ রহমতে সকলে বেশ ভালো আছেন।


আজকে আমি আপনাদের সামনে নিয়ে হাজীর হলাম খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি টপিক নিয়ে যা হয়তো আপনারা অনেক আগের থেকেই জানার চেষ্টা করছেন।

বাংলাদেশের সিম অন্য কোনো দেশে ব্যাবহার করার জন্য আপনাকে প্রথমে আপনার সিম কার্ডের ইন্টার ন্যাশনাল রোমিং অন করতে হবে।

যাঁরা জানেন না যে ইন্টারন্যাশনাল রোমিং কাকে বলে তাঁরা জেনে নিন। ইন্টার ন্যাশনাল রোমিং হচ্ছে যেই পদ্ধতিতে বাংলাদেশের সিম অন্য কোনো দেশে ব্যাবহার করা যায় সেই পদ্ধতি কে ইন্টারন্যাশনাল রোমিং পদ্ধতি বলে।

একটা সময় কিছুটা এমন ছিলো যে, আমাদের দেশে শুধুমাত্র গ্রামীণ সিম এ এই সুবিধা টি দেওয়া হতো। কিন্ত এখন আমাদের দেশে প্রায় সকল অপারটরের সিম গুলোতে এই সুবিধা টি দেওয়া হয়।

এই রোমিং পদ্ধতি এর কিছু উপকারিতা ও অপকারিতা উভয় রয়েছে। আবার কিছু বাধা বাদ্ধকতা ও যা নীচে উল্লেখ করা হলো:


উপকারিতা:

১. বিদেশে যেয়েও এই সিম ব্যাবহার করতে পারবেন।

২. বিদেশে যেয়েও এই সিম দিয়েই কিছু ইন্টারনেট ব্যাবহার করতে পারবেন।

৩. মেসেজ ও ব্যবহার করতে পারবেন।

৪. খুবই বড়ো আর দামী ইন্টারনেট বা মিনিট প্যাকেজ ব্যবহার করতে পারবেন যা সাধারন ইউজার রা পারবেনা।


অপকারিতা:

১. কল করলেও টাকা কাটবে কল আসলেও টাকা কাটবে।

২. মেসেজ আসলেও টাকা কাটবে পাঠালেও টাকা কাটবে।

৩. কিছু সিম কোম্পানি ক্রেডিট কার্ডের উভয় পাশের ছবি নিয়ে নিয়ে নেয়। এতে নিরাপত্তা নষ্ট হয়। উভয় পাশের কাউকে দিয়ে দিলে সে আমার কার্ড থেকে টাকা বের করে নিতে পারবে।


যা যা প্রয়োজন:

১. একটি ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড (৬+ মাস মেয়াদি)

২. পোস্টপেইড সিম। কিছু সিম কোম্পানি প্রিপেইড এও করে দিতে পারে।

৩. মেয়াদ যুক্ত পাসপোর্ট।

৪. সর্বোচ্চ 5000 টাকার মতো ডিপোজিট করে রাখতে হবে।

যেভাবে রোমিং অন করবেন:

যা যা প্রয়োজন সমস্ত কিছু পূরণ হয়ে গেলে সবকিছু নিয়ে কাস্টমার কেয়ারে চলে যাবেন। তারপর তারা যেই ফ্রম দিবে ফ্রম টি ফিলাপ করতে হবে। এবং তাঁরা আপনার সমস্ত ডকুমেন্ট এর ফটোকপি করে রেখে দিবে।

তো এইভাবে আপনি রোমিং পদ্ধতি টি ব্যাবহার করতে পারবেন। আর এই সম্পর্কে যদি আরও বিস্তারিত জানতে চান তাহলে আমি প্রতিটি সিম কোম্পানির রোমিং লিঙ্ক গুলো দিচ্ছি সেখান থেকে বিস্তারিত জানতে পারবেন।


আজ তাহলে এই পর্যন্তই থাক। আপনারা সকলেই ভাল থাকুন। সুস্থ থাকুন। আর কোনো সমস্যা হলে আমাকে জানান। আর আমার পরবর্তী পোস্ট টি কিসের উপর চান সেটি আমাকে জনিয়ে দিন কমেন্টে করে।

Post a Comment

0 Comments